পাবনায় চাঞ্চল্যকর শরিফুল হ’ত্যা: সিআইডির হাতে ধরা ৭ আসামি!

পাবনা সদরের ভাড়া ইউনিয়নের বকসিপুর গ্রামের ডেকরেটর ব্যবসায়ী শরীফুল ইসলাম সরদার(২৫) চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার এজহার নামীয় ৭ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (সিআইডির) একটি দল। ১৫ আগস্ট শনিবার ঢাকা পালানোর পথে সদরের জহিরপুর গ্রাম থেকে তাদের আটক করা হয়।

ঘটনার বিষয়ে গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই মাসুদ রানা জানান, চলতি বছরের ২৫ মে পাবনা সদরের ভাড়া উইনিয়নের বোকশিপুর গ্রামের মিনাজ সরদারের ছেলে শরীফুল ইসলাম সরদারকে হত্যা করে দূর্বৃত্তরা। এই ঘটনায় নীহতের বাবা বাদী হয়ে পাবনা সদর থানায় পরেদিন ২৬ মে ১৮ জনের নাম ও অজ্ঞাত নামা দিয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। এই হত্যা মামলা পাবনা সদর থানা থেকে ২৬ জুন (সি আই ডির) কাছে মামলা হস্তান্তর করা হয়। এই হত্যা মামলা তদন্ত সাপেক্ষে গোয়েন্দা পুলিশ হত্যা পূর্বে ৫জনসহ নতুন আরো ৭জনকে আটক করে। হত্যা মামলার মোট ১২জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে আর পলাতক রয়েছে আরো ৬জন।

পুলিশ আরো জানান, গতকাল শনিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকা পালানোর প্রস্তুতির সময়  জহিরপুর গ্রামের একটি বাড়ি থেকে হত্যা মামলার ৭জন আসামীকে কে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসা বাদের পরে তাদের বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এই হত্যা মামলার অন্য পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যহত রয়েছে বলে জানান তিনি।

হত্যা মামলায় আটককৃতরা হলেন- পাবনা সদরের ভাড়ারা ইউনিয়নের বকশিপুর গ্রামের মৃত আহম্মেদ আলীর ছেলে আব্দুস সোবহান (৪০), তোমিজ উদ্দিনের শেখের ছেলে মোঃ তজের শেখ(৫০),মৃত আহম্মেদ শেখ এর ছেলে কুদ্দুস শেখ(৪৫), মোঃ আফতাব প্রাঃ এর ছেলে আব্দুর রাজ্জাক প্রাঃ( ৪৫), আজমত প্রাঃ এর ছেলে জুয়েল রানা প্রাঃ(১৯),মৃত কৃদ্দুস শেখের ছেলে আনাই শেখ (৪৫),আইনাল শেখের ছেলে ইসমাইল শেখ(২৮)। গ্রেফতারকৃতদের বাড়ি একই গ্রামে বলে জানিয়েছেন পুলিশ।